fbpx
sellchat.ai do you really need a chatbot

আপনার সত্যিই কি চ্যাটবট দরকার?

সেলচ্যাট বানিয়েছি রিটেইলারদের সত্যিকার অর্থে উপকার করতে। আমাদের কাছে অনেকেই চ্যাটবট সার্ভিস চাইছেন, এবং অনেক সময় আমাদের প্রশ্ন শুনে আপনার মনে হতে পারে যে চ্যাটবট সেল করার চাইতে আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে বেশি প্রশ্ন করছি। আসলে সত্যি তাই। আমরা যাচাই করি যে আপনার সত্যি সত্যি চ্যাটবট দরকার কিনা। এর কারন হলো, আমরা এমন রিটেইলারদের কাছে চ্যাটবট দিতে চাই যাদের বেশি দরকার।

সেলচ্যাট আপনার কাস্টমারদের রিপ্লাই দিয়ে যদি আপনার সেলস বাড়াতে বা কনভার্সন বাড়াতে সাহায্য করে তাহলেই আমাদের লাভ। একটি মার্কেটিং ক্যাম্পেইন যা কাজ করে, একটি ভালো সাকসেস স্টোরি, তার চাইতে হাজার গুন বেশি ইফেক্টিভ। আমরা যাচাই-বাছাই করে আপনাকে যদি চ্যাটবট সার্ভিস দেই তাহলে আপনার যেমন লাভ, আমাদেরও লাভ।

আমরা যে প্রশ্নগুলো করি তা কেন করি, তার ডিটেইলস দেওয়া হলোঃ

১। আপনার ডেইলি কতগুলো মেসেজ ও কমেন্ট আসে? এড দেওয়ার সময় বা এড না দেওয়া থাকলে। কিম্বা লাইভের পরে।


ডেইলি কমেন্ট বা মেসেজের পরিমান নির্ভর করে কয়েকটি বিষয়ের উপর। এড চালু থাকলে, লাইভ করার সময় বা পড়ে আর এড চালু না থাকলে।

এড চালু না থাকলে প্রতিদিন যদি আপনার ৫০ এর কম মেসেজ বা কমেন্ট আসে, তাহলে আপনার উচিত নিজেই কমেন্টের বা মেসেজের রিপ্লাই দিতে। কারন, ব্যবসার পরিচালকের চাইতে ভালো আর কেউ ওই ব্যবসা সম্পর্কে জানেন না। আর পরিচালক নিজে রিপ্লাই দিলে কাস্টমারদের কাছে আন্তরিক বেশি হওয়া যায়। কাস্টমারের সমস্যা পরিচালক নিজে শুনলে তিনি তার ব্যবসা আরো বেশি কাস্টমার সেন্ট্রিক করতে পারেন। মনে রাখবেন, কাস্টমার ইজ অলওয়েজ দি কিং।

যদি এড চালু থাকে তাহলে বা নিয়মিত লাইভে আসা হয়, এবং মেসেজ ডেইলি ১০০ এর মত হলে আপনার চ্যাটবট নেওয়ার কথা চিন্তা করতে পারেন।

২। আপনার প্রোডাক্টের সর্বনিম্ন মূল্য কত।


এর মাধমে আপনি জানতে পারবেন আপনার কতগুলো পন্য বা সেবা সেল করতে হবে, লাভ কেমন হবে আর খরচই বা কেমন হবে।

মনে করুন, আপনি অনলাইনে শাড়ী সেল করছেন এবং আপনার প্রোডাক্টের সর্বনিম্ন দাম ১০০০ টাকা। তাহলে, ১ লাখ টাকা আয় করতে আপনার ১০০ টি শাড়ী সেল করতে হবে।

আবার, শাড়ী সেল করতে বুস্টিং করতে হয়, শাড়ী কেনার খরচ আছে, সব খরচ মিলে ধরুন আপনার খরচ ৮০ হাজার টাকা। তাহলে, আপনার মুনাফা হলো ২০ হাজার টাকা। যদি ইউনিট হিসাবে আসি, তাহলে আপনার শাড়ীর দাম ১০০০ টাকা, ৮০০ টাকা খরচ আর ২০০ টাকা প্রফিট।

এই দামের উপর নির্ভর করবে যে আপনি চ্যাটবট নিতে পারবেন কিনা বা আপনার নেওয়া উচিত হবে কিনা। আমাদের সর্বাধুনিক চ্যাটবট প্লাটফর্মের দাম সার্ভিসের দাম ৭০০০ টাকা। তারমানে, ৭০০০ টাকা আয় করতে আপনার এক্সট্রা শাড়ী বেশি বিক্রি করতে হবে ৩৮ টি শাড়ী।

এখানে শাড়ীর জায়গায় যে কোন পণ্য হতে পারে। আমরা যদি মনে করি যে আপনার জন্য সেই পরিমান সেল বাড়ানো সম্ভব, তাহলে আমরা বলি যে আপনি চ্যাটবট নিতে পারেন, আর যদি মনে করি যে আপনার বিজনেস এখনো সেই লাভবান পর্যায়ে আসে নাই, তাহলে আমরা সাজেশন দেই কিভাবে আপনি সেই পর্যায়ে যেতে পারেন।

৩। এড বুস্ট করার সময় কত পার্সেন্ট মানুষ প্রোডাক্ট নেন আর কত পার্সেন মানুষ কিনেন না?


চ্যাটবটের একটা সাধারন ফিচার হলো ব্রডকাস্ট। এটা দিয়ে সর্বোচ্চ ১০ হাজার জনকে একসাথে মেসেজ পাঠানো যায়। মনে করেন আপনি একটা এড করে মোট ১০০ প্রস্পেক্টের মেসেজ পেয়েছেন। এর মধ্যে থেকে আপনার পন্য কিনেছেন ১০ জন আর বাকী ৯০ জন হারিয়ে যায় মেসেজের ভীরে।

আপনি যদি জানেন যে কত পার্সেন্ট কিনেন আর কত পার্সেন্ট মানুষ কিনেন না, তাহলে আপনি জানবেন কিভাবে ব্রডকাস্ট আপনাকে হেল্প করবে। এটাকে বলে কনভার্সন, মার্কেটিং এর ভাষায়। এই কনভার্সন রেট বুঝতে পারলে, আপনি বুজতে পারবেন যে চ্যাটবট নেওয়া দরকার কিনা।

মনে করুন, চ্যাটবটের জন্য ওই পুরোনো ৯০ জন থেকে আরো দশ প্রস্পেক্ট আপনার পণ্য কিনলেন, তাহলে আপনার সেলস বাড়লো ১০ টি আর প্রফিটও বাড়লো। সেই ক্ষেত্রে চ্যাটবট আপনার জন্য উপকারি।

৪। আপনার কি মনে হয় যে একজন লোক নেওয়া প্রয়োজন রিপ্লাই দেওয়ার জন্য?


অনেক সময় আপনার ভবিষ্যতের পরিকল্পনা থাকে বড় কিছু করার। আপাতত যা আছে, তা হয়ত বড় কোন পরিকল্পনার অংশ। আপনি যদি মনে করেন যে চ্যাটবট আপনার প্লানের একটা অংশ, তাহলে আমাদের জানাবেন। আমরা আপনার জন্য ভালো সাজেশন দিতে পারবো।

। এখন আপনি ব্যাবসার মনিটরিং করেন কিভাবে?


আমাদের সাথে যারা যোগাযোগ করেন, বেশির ভাগ মানুষ ছোট ব্যবসা বলে ব্যবসার মনিটরিং করেন না। স্টক ম্যানেজমেন্ট, কাস্টমারের লিস্ট রাখা, ইত্যাদি করেন না। আমরা আমাদের চ্যাটবটের ড্যাশবোর্ডের সাথে এগুলো এড করেছি, যাতে আপনি স্টান্ডার্ড মেইনটেইন করেন। সাথে এগুলো বেনিজিট নিতে পারেন।

এই প্রশ্ন করে আপনার জানতে পারি, আপনি কতটা গুছিয়ে ব্যবসা করছেন আর আমরা কিভাবে আরো আপনাকে সাহায্য করতে পারি।

সবশেষে বলতে চাই, আমরা লং টার্মের সম্পর্কে বিশ্বাসী। আমাদের লক্ষ হলো এফ-কমার্স সেক্টরকে একটা ভালো অবস্থানে নিয়ে যাওয়া। সবাইকে একটি বিকল্প আয়ে সুযোগ করে দেওয়া। আপনাদের ননেজ বাড়ানো। আপনাদের সফলতাই, আমাদের সফলতা।

Share this post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on print
Share on email