আমাদের গল্প

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে আমরা আমাদের স্টার্টআপ শুরু করি। লক্ষ্য ছিল, রেগুলার কাজের ফাঁকে আমাদের ইউজারদের জন্য এক্সট্রা একটা ইনকাম সোর্স তৈরি করা। বেশ কিছু আইডিয়া নিয়ে কাজ করার পর বুঝতে পারলাম এফ কমার্স উদ্যোক্তাদের ইনকাম বাড়াতে আমরা যে অবদান রাখতে পারব, সেটাই আমাদের সবচেয়ে শক্তিশালী জায়গা। বেশ কিছু রিসার্চের পর আমরা sellchat.ai বানানো শুরু করলাম। তখন থেকে আজ পর্যন্ত এফ কমার্স ব্যবসায়ীদের সেল বাড়ানোর জন্য আমরা বেশ সফলতার সাথে কাজ করে যাচ্ছি।

এফ কমার্স ব্যবসায়ীদের বেস্ট ফ্রেন্ড!

একটা ব্যবসা চালানো বেশ কঠিন একটা কাজ। আর ই-কমার্সের জন্য কাজটা আরও কঠিন। একটা স্টার্টআপ হিসেবে আমরা জানি ফেসবুকে ব্যবসা চালানো এবং প্রোডাক্ট বিক্রি করা কতটা কঠিন। আপনাকে প্রথমে আপনার প্রোডাক্টের ছবি তুলতে হবে, প্রোডাক্টের ডেসক্রিপশন লিখতে হবে এরপর সেটা আপলোড করতে হবে এবং শেষে সেটা ক্যাটালগ করতে হবে। এখানেই কাজ শেষ না, মাত্র শুরু। এই প্রোডাক্ট নিয়ে আপনাকে ফেসবুকে সঠিক অডিয়েন্সের কাছে মার্কেটিং করতে হবে, প্রত্যেক সম্ভাব্য কাস্টোমারকে রিপ্লাই দিতে হবে এবং তারপর হয়ত অবশেষে আপনি একটা অর্ডার পাবেন।

আমাদের সার্ভিস

আমরা আমাদের ইনভেন্টরি সাপোর্ট দিয়ে আপনার ব্যাক-এন্ড লজিস্টিকস এ হেল্প করতে চাই। আপনার ফেসবুক পেজের কাস্টোমারদের সব রিপ্লাই দেয়ার জন্য আমাদের AI Chatbot রেডি। আপনি চাইলে আপনার প্রতিদিনের সেলস ট্র্যাকিং ও আমরা করে দেব।

আমাদের ইনোভেটিভ টিম

আমাদের কাজের স্টাইল ইনোভেটিভ, ফাস্ট এবং আমরা শব্দ করে কাজ করতে পছন্দ করি। এটাই আমাদের অন্যদের চেয়ে আলাদা করে এবং এখন পর্যন্ত এভাবেই আমরা সবচেয়ে বেশি প্রোডাক্টিভিটি দেখাতে পেরেছি।

আমাদের ম্যানেজমেন্ট টিম

মুস্তফা আল মোমিন

ম্যানেজিং ডিরেক্টর

ইঞ্জিনিয়ারিং, লিডারশীপ এবং প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্টে মুস্তফার রয়েছে ৬ বছরের অভিজ্ঞতা। যুক্তরাষ্ট্রের মনটানা স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ স্নাতক মুস্তফা কাজ করেছেন IOT, রিনিউয়েবল এনার্জি, সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট এবং ডিপ লার্নিং নিয়ে।

মুস্তাফিজ রহমান খান

ডিরেক্টর

মুস্তাফিজ খান একজন ক্রমিক উদ্যোক্তা, এঞ্জেল ইনভেস্টর এবং একজন মার্কেটর। ইন্ডাস্ট্রিতে মুস্তাফিজের ২২ বছরের বিস্তর অভিজ্ঞতা আছে। উনি Startup Dhaka এর ফাউন্ডার যেটা কিনা উদ্যোক্তাদের ডেভেলপমেন্ট নিয়ে কাজ করে এবং উনি একই সাথে একটি এক্সিলারেটর প্রোগ্রামের অপারেটিং পার্টনার। মুস্তাফিজ রহমান খান IDLC Assessment Management company এর একজন পার্টনার। এটি ৫ মিলিয়ন ডলার ফান্ড নিয়ে গঠিত একটি ভেঞ্চার ক্যাপিটাল।

জেবা মালিহা

ডিরেক্টর

জেবা ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি থেকে মার্কেটিং এ বি বি এ করেছেন। মার্কেটিং লিডারশীপে জেবার ২ বছরের ও বেশি সময় কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে।

শফিক উল আজম

ডিরেক্টর

১৯৮৬ সালের নভেম্বরে আজম MIDAS এর সাথে তাঁর ক্যারিয়ার শুরু করেন। গত ৩২ বছর ধরে উনি MIDAS এবং MIDAS Financing এর সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। উনি ৯ বছর MIDAS Financing এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর সহ প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন পর্যায়ে কাজ করেছেন।

আমাদের অর্জন

সেরা ইনোভেটিভ স্টার্টআপ ২০১৭

GPA এর পঞ্চম ব্যাচে cWork সেরা ৫ টি স্টার্টআপের একটি ছিল

সর্বোচ্চ র‍্যাংকড AI কোম্পানি ২০১৮

BDV থেকে DHK তে সিড ফান্ডিং প্রাপ্তি

সিলিকন ভ্যালি YC Graduate ২০১৯

মর্যাদাপূর্ণ YC STC থেকে গ্রাজুয়েশন